আমার কবিতার খাতা থেকে : ধুলোময় শহরের বুকে ।।১৪ অক্টোবর ,বৃহস্পতিবার ২০২১।।

in আমার বাংলা ব্লগ2 months ago

|image.png

Source

একটা বিশ্বাস নিয়ে আমরা শহরে এসেছি
আমরা বিশ্বাস করতাম প্রতিদিন ক্ষুধার যন্ত্রণায়,
শহরে টাকা উড়ে শহরে খাদ্যের ফোয়ারা চলে।
এই বিশ্বাস নিয়ে আমরা গ্রাম থেকে তল্পিতল্পা নিয়ে
শহরের উপকণ্ঠে উপস্থিত হয়েছি।
আমাদের বিশ্বাস এখানে কাজ মিলবে অহরহ
আমরা ভুলে যেতে চাই প্রত্যেকদিন এর ক্ষুধার যন্ত্রণা
নবজাতক শিশুর কান্নার আওয়াজ,
বেড়ে ওঠা শিশুর দুধের অভাব,
বৃদ্ধার উন্মাদনা আমরা ভুলে যাই।
আমরা শহরে এসেছি একটা বিশ্বাস নিয়ে,
শহরে এসে দেখি অন্য রূপ অন্য জৌলুস
এখানে কারও কোনো কিছু শোনার সময় নেই,
প্রত্যেকে চলছে নিজের ছায়াকে অনুসরণ করে।
কাজের জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছি রাত দিন এক করে
কারো কোনো মাথাব্যথায় নেই,
নিষ্ঠুরতা মহাকাব্যের মতন তো জনপ্রিয়।
আমরা ক্ষুধার যন্ত্রণা আর অভাব নিয়ে
যে মরীচিকার স্বপ্নে এখানে উপস্থিত হয়েছি ,তা অধরা।
তাই আবার ফিরছি গ্রামের দিকে শহরকে পিছনে রেখে,
গ্রামেই বেঁচে থাকার সংগ্রাম,
আবার ফিরে যেতে চায় মন সবুজের মাঝে।
এই স্বপ্ন নিয়ে একদিন পৃথিবী আমাদের,
ফিরিয়ে দেবে সৌভাগ্য আমাদের স্বপ্নের মত করে।



BoC- linet.png


ধন্যবাদ।সবাই ভালো থাকবেন।

BoC- linet.png
-cover copy.png

|| Community Page | Discord Group ||


image.png

Beauty of Creativity. Beauty in your mind.
Take it out and let it go.
Creativity and Hard working. Discord

image.png

Sort:  

শহরের চেয়ে গ্রামেই জীবন যাপন করা অনেক বেশিই ভালো লাগে প্রকৃতি আগলে রাখে আমাদের কে। আপনি অনেক সুন্দর লিখেছেন দাদা। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে আপনার জন্য শুভকামনা রইলো

 2 months ago 

শহরে এসে জীবিকার সন্ধানে হাজারো মানুষ হন্য হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। একমুঠো ভাত অনেক সময় তার কপালে জুটছে না। ক্ষুধার যন্ত্রণায় চারপাশ যখন অন্ধকার হয়ে আসে তখনও কেউ পাশে এসে হাতটা ধরে না। শহরের জীবন যে যার মতো ব্যস্ত। আর ব্যস্ততার মাঝে হারিয়ে যায় হাজারো মানুষের ভিতরে লুকানো কষ্ট বেদনা। এই পৃথিবীটা বড়ই বিচিত্র। কারো জীবন বিলাসিতায় ভরা আবার কেউবা খুজে এক মুঠো খাবার। আপনার এই কবিতার মাঝে লুকিয়ে রয়েছে হাজারো মানুষের জীবনের কথা। অনেক সুন্দর একটি কবিতা আমাদের মাঝে উপহার দিয়েছেন দাদা। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ দাদা।

 2 months ago 

ধন্যবাদ।

 2 months ago 

ধুলোময় শহরের বুকে কথাটা একদমই ঠিক বলেছেন।

আবার ফিরে যেতে চায় মন সবুজের মাঝে।
এই স্বপ্ন নিয়ে একদিন পৃথিবী আমাদের,
ফিরিয়ে দেবে সৌভাগ্য আমাদের স্বপ্নের মত করে।

শহরের চেয়ে গ্রামেই জীবন যাপন করা অনেক বেশিই ভালো লাগে প্রকৃতি আগলে রাখে আমাদের কে। আপনি অনেক সুন্দর লিখেছেন দাদা। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে আপনার জন্য শুভকামনা রইলো

This post has been upvoted by @italygame witness curation trail


If you like our work and want to support us, please consider to approve our witness




CLICK HERE 👇

Come and visit Italy Community



Hi @blacks,
my name is @ilnegro and I voted your post using steem-fanbase.com.

Please consider to approve our witness 👇

Come and visit Italy Community

 2 months ago 

একটা বিশ্বাস নিয়ে আমরা শহরে এসেছি
আমরা বিশ্বাস করতাম প্রতিদিন ক্ষুধার যন্ত্রণায়,
শহরে টাকা উড়ে শহরে খাদ্যের ফোয়ারা চলে।
এই বিশ্বাস নিয়ে আমরা গ্রাম থেকে তল্পিতল্পা নিয়ে
শহরের উপকণ্ঠে উপস্থিত হয়েছি।

এই কথাগুলো অসম্ভব বাস্তব কিছু কথা ভাইয়া।
কত মানুষ প্রতিদিন গ্রাম ছেড়ে চলে আসে।কারণ অনেকের ধারণা এই শহরে বুঝি অনেক টাকা, অনেক কাজের সুযোগ। কিন্তু এ শহরে তো কাজের বড়ই অভাব।সবার ব্যস্ততার মাঝেই সেই চাপা কষ্ট থাকে।

 2 months ago 

আমাদের বিশ্বাস এখানে কাজ মিলবে অহরহ
আমরা ভুলে যেতে চাই প্রত্যেকদিন এর ক্ষুধার যন্ত্রণা।

দাদা এই লিখাটা একদম ১০০% সত্যি। আমার ঢাকায় আজ হাজারো মানুষ ছুটে আসে একটু খাবারের জন্য🥺🥺। আজ সকালে দেখলাম এক বিদ্ধ মানুষ রিক্সা চালাচ্ছে আমি তার রিক্সাতেই উঠেছি। বললাম চাচা ছেলে নেই? বল্ল আছে বাবা একটা ছেলে। আমি বললাম চাচা এই বয়সে রিক্সা চালাচ্ছেন। বলল বাবা গ্রাম থেকে এসেছি খেতে যে হবে🥺🥺বেলা ১১ টা বেজে গেছে বললাম চাচা খেয়েছেন? বল্ল না পরে চাচাকে নিয়ে এক সাথে নাস্তা করে হাতে ১০০ দিয়ে বললাম চাচা রেখে দিন। কি এক তিপ্তিময় নিশ্বাস যে নিল তা বলার মতন না। এটাই আসলে জীবন।

 2 months ago 

Apni sottikarer manusher dharmo k dharon koren.kakhono apnar ai Vitorer manush ta k hariye jete deben na.

 2 months ago (edited)

ভাই,শহর থেকে গ্রাম অনেক ভালো।কারণ গ্রামে সহজ সরল মানিষগুলো বসবাস করে। একে অন্যের বিপদে এগিয়ে আসে।আর শহরে সবাই নিজ নিয়ে ব্যস্ত।
অনেক সুন্দর কবিতাটি লিখেছেন,সে জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

 2 months ago 

আপনার কবিতার মাঝে পল্লি কবি জসিমউদদীনের গ্রাম প্রেম ফুটে উঠে এসেছে। গ্রামের মতো শান্তি এবং সুখের যায়গায় কোথাও মেলে না। গ্রামের টানে শহরে মন থাকতে চায় না। যারা শহরে থাকেন তাদের মাঝেও একধরনের অস্থিরতা কাজ করে। অনেক সুন্দর কবিতা ছিলো ভাই। জাযাকাল্লাহ দান করুক আল্লাহ্ তায়ালা

 2 months ago 

আমার বাবা মাঝেমধ্যে এই কথা বলে যে সে নাকি গ্রামে চলে যাবে, ওইখানেই শান্তি। আমরা তখন জিজ্ঞেস করি কিসের অভাব তোমার এখানে। আব্বা এক কথায় উত্তর দেয় গ্রামের শান্তির। সত্যি ভাই আপনি অনেক গুলো ভালো কথা লিখছেন আপনার কবিতায়।

 2 months ago 

অসাধারণ বাস্তবধর্মী কবিতা।শহর শুধুই ব্যস্তময়।এখানে সবাই নিজ কর্মের মধ্যে সীমাবদ্ধ ,নেই কোনো সময়।শুধু আছে ইটপাথরের হাহাকারধ্বনি।আর গ্রামে আছে শান্তি, আন্তরিকতা ও নীরবতা।সবকিছুই কবিতা লেখনীর মধ্যে ফুটে উঠেছে।ধন্যবাদ দাদা।

 2 months ago 

"নবজাতক শিশুর কান্নার আওয়াজ,
বেড়ে ওঠা শিশুর দুধের অভাব, " গভীর থেকে গভীরতর । ভয় লাগে ,এমনটা যেন না ঘটে কারো সঙ্গে ।

 2 months ago 

সহুরে জীবনের আংশিক ক্ষন। ভালছিল লেখা টুকু

 2 months ago 

আপনার কবিতা টি বাস্তবতার নিরিখে লেখা । খুবি ভাল লেগেছে । আসলে এভাবে কেউ ভাবে না দাদা । আমরা সবাই টাকার পিছনে ছুটছি। আমরা শহর মুখি তবুও কিছু মানুষ এভাবে কবিতা লিখে সকল কে সচেতন করতে চায়। চল গ্রামে ফিরে যাই।

 2 months ago 

আপনার কবিতার মাঝে গ্রাম বাংলার প্রেম ফুটে উঠেছে। গ্রামের মতো শান্তি এবং সুখের যায়গায় কোথাও নেই।আমার গ্রাম খুবি ভালো লাগে।গ্রামের মায়া আমি ছাড়তে পারি না।অনেক সুন্দর কবিতা ছিলো । আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইলো।

 2 months ago 

গ্রামেই বেঁচে থাকার সংগ্রাম,
আবার ফিরে যেতে চায় মন সবুজের মাঝে।
এই স্বপ্ন নিয়ে একদিন পৃথিবী আমাদের,
ফিরিয়ে দেবে সৌভাগ্য আমাদের স্বপ্নের মত করে।
এই জায়গাটা আমার খুব ভালো লেগেছে ভাইয়া। সত্যি ভাইয়া গ্রামের মতো সুন্দর প্রকৃতি আর কোথাও নেই।

ধন্যবাদ ভাইয়া এতো সুন্দর একটি কবিতা আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।
আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।

 2 months ago (edited)

দাদা আপনি খুবই সুন্দর একটি বাস্তবধর্মী কবিতা লিখেছেন। এমন অনেক মানুষ আছেন যারা গ্রামের সহজ-সরল পরিবেশ ছেড়ে শহরে আসেন কাজের খোঁজে। এর মধ্যে অনেকে সফল হন আবার অনেকে ব্যর্থ হয়ে আবার নিজ পরিবেশে চলে যান। গ্রাম থেকে শহরে এসে শহরের পরিবেশ তা মানিয়ে নেওয়া একটি চ্যালেঞ্জ এর ব্যাপার। শহরে মানুষ মানুষের কথা শোনার সময় নেই। শহরে মানুষ এতটাই ব্যস্ত যে তাদের নিজেদের ছায়ার সাথেই তাদের একটিবার চোখ মেলে দেখার সময় নেই। আজকাল শহরের মানুষ ও রোবট দুই এর মধ্যে তেমন পার্থক্য নেই বললেই চলে। ধন্যবাদ দাদা এত সুন্দর একটি কবিতা আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

অসাধারণ একটি কবিতা লিখেছেন ভাই।ক্ষুদা নিবারণের জন্য আমরা আমাদের শ্রম খাটাই।কিন্তু অনেক মানুষ আছে শ্রম খাটানোর জায়গা খুঁজে পায় না।যায় ফলে তাদের থাকতে হবে বুখা।কবিতাটিতে বাস্তবতার করুন চিত্র তুলে ধরেছেন।খুব ভালো লাগছে ভাই।আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।

 2 months ago 

অনেক আশা নিয়ে ও গ্রামে গিয়ে আসলে কাজের সন্ধান না পাওয়াটা অনেকটাই করুন ব্যাপার। গ্রামে অন্তত কাজ না পেলে অন্যরা খোঁজ-খবর নেয় কিন্তু শহরে খোঁজখবর নেওয়ার মানুষের অভাব। কবিতাটি অসাধারণ হয়েছে এবং খুব ভালো লেগেছে। শেষ তিনটি লাইন অনেক চমৎকার ছিল

শহরের জীবন যে যার মতো ব্যস্ত। আর ব্যস্ততার মাঝে হারিয়ে যায় হাজারো মানুষের ভিতরে লুকানো কষ্ট বেদনা। এই পৃথিবীটা বড়ই বিচিত্র। কারো জীবন বিলাসিতায় ভরা আবার কেউবা খুজে এক মুঠো খাবার। আপনার এই কবিতার মাঝে লুকিয়ে রয়েছে হাজারো মানুষের জীবনের কথা। অনেক সুন্দর একটি কবিতা আমাদের মাঝে উপহার দিয়েছেন দাদা। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ দাদা।

 2 months ago 

বাস্তব লেখা , মনে পড়ে গেল দশম শ্রেণী তে পড়ে আসা , সুভাষ মুখোপাধ্যায় এর লেখা " স্বাগত " কবিতাটি।

খুবই অপূর্ব লেখা।

Coin Marketplace

STEEM 0.50
TRX 0.09
JST 0.063
BTC 49370.84
ETH 4124.67
BNB 568.61
SBD 6.20